সংবাদ ডেস্ক :

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। সোমবার এক টুইট বার্তায় প্রণব মুখার্জির পুত্র অভিজিৎ তাঁর বাবার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি, সেনা হাসপাতালের চিকিৎসকদের প্রাণপ্রণ প্রচেষ্টা, সারা ভারতের মানুষের প্রার্থনা, দোয়া সত্ত্বেও এইমাত্র আমার বাবা শ্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় মারা গেছেন। আমি আপনাদের সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

গত ১০ আগস্ট দিল্লির সেনা হাসপাতালে প্রণব মুখার্জিকে অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছিল। পরীক্ষার সময় তাঁর মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে আছে দেখা গিয়েছিল। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল। তাঁর করোনা রিপোর্টও পজিটিভ এসেছিল। অস্ত্রোপচারের পর থেকেই ভেন্টিলেশনে ছিলেন তিনি।

এর আগে গত বুধবারের বুলেটিনে সামরিক হাসপাতাল জানায়, প্রণব মুখার্জির রেনাল প্যারামিটারে কিছু পরিবর্তন হয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই রেনাল প্যারামিটার বলতে বোঝায়, শরীরে ইউরিয়া, ক্রিয়েটিনিন, সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ক্লোরাইড, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ইউরিক অ্যাসিড প্রভৃতির মাত্রা।

এসব উপাদানের পরিবর্তন হলে শরীরে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। তবে এর মধ্যে কিছুদিন এসব সমস্যা কমে গেলেও নতুন করে আবার তার ফুসফুসের সংক্রমণ বেড়ে গেছে।

গত ৯ আগস্ট রাতে নয়াদিল্লির রাজাজি মার্গের বাড়িতে বাথরুমে ভারসাম্য হারিয়ে পড়ে যান প্রণব মুখার্জি। মস্তিষ্কে আঘাত নিয়ে পরের দিন অর্থাৎ ১০ আগস্ট সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। এই প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের কোভিড রিপোর্টও পজিটিভ আসে। তার মস্তিষ্কে যে রক্ত জমাট বেঁধেছিল তা বের করতে অস্ত্রোপচার করেছিলেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পরে আর জ্ঞান ফেরেনি তার। এরপরেই গভীর কোমায় চলে যান প্রণব মুখার্জি।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here