আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়া তাদের তৈরি কোভিড-১৯-এর সম্ভাব্য টিকার উৎপাদন শুরু করেছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে টিকা উৎপাদন শুরুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে দাবি করে, উৎপাদন শুরু হওয়ায় দুই সপ্তাহের মধ্যে টিকা প্রয়োগ শুরু করা যাবে।

স্নায়ুযুদ্ধ যুগে মহাকাশ জয়ে অবদান রাখা সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের কৃত্রিম উপগ্রহ ‘স্পুৎনিক’ এর নামে রাশিয়া তাদের কোভিড-১৯ টিকার নাম রেখেছে।

গত সপ্তাহে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে রাশিয়া কোভিড-১৯ এর একটি টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেয়। মস্কোর ‘গামালিয়া ইনস্টিটিউট’র বানানো ওই টিকা মানব দেহে পরীক্ষামূলক ব্যবহারের পর দুই মাসও পেরোয়নি।

এমনকি এর তৃতীয় বা চূড়ান্ত ধাপের পরীক্ষাও হয়নি। তার আগেই দেশটির সরকার গণহারে টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া নিয়ে বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

তড়িঘড়ি করে কোভিড-১৯ টিকার অনুমোদন দেওয়ায় এবং টিকা সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য-উপাত্ত না থাকায় খোদ রাশিয়ার বেশিরভাগ চিকিৎসক এই টিকা নিতে অস্বস্তি বোধ করছেন বলে এক জরিপে উঠে এসেছে।

রাশিয়ার তিন হাজারেরও বেশি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞর ওপর এ জরিপ চালানো হয়। টিকাটি তৃতীয় ধাপের চূড়ান্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ না হওয়ায় এই অস্বস্তি, বলেছেন বেশিরভাগ চিকিৎসক।

তবে রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরশেঙ্কোর দাবি, তাদের টিকা ‘অত্যন্ত কার্যকর এবং নিরাপদ’।

২০টির মতো দেশ এরইমধ্যে রাশিয়ার টিকা নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলেও জানিয়েছে মস্কো। সেই দেশগুলোর একটি ভিয়েতনাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here