আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

সীমান্তে চীনের সঙ্গে বিরোধ চলাকালীনই ভারতে পৌঁছাতে চলেছে রাফাল যুদ্ধবিমান। ভারতীয় বিমান বাহিনীর পরিকল্পনা অনুযায়ী এবার এই বিমানে ফ্রান্সের হামার মিসাইলগুলো যুক্ত করে রাফাল জেটকে আরও শক্তিশালী করে তোলা হবে।

যেকোনও জরুরিকালীন অবস্থায় মোদি সরকার বিমান বাহিনীকে আরও শক্তিশালী করে তোলার লক্ষ্যে রাফালে হামার মিসাইল যুক্ত করছে। এই মিসাইল ৬০-৭০ কিমি দূরেও অভিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে। খবর এএনআই’র।

জানা গেছে, হামার মিসাইল তৈরি হচ্ছে এবং ফ্রান্স রাফাল যুদ্ধবিমানের জন্য সেগুলো ভারতকে সরবরাহ করবে বলেও জানিয়েছে।
ফ্রান্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতীয় বিমান বাহিনীর জরুরি প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখেই অন্য কিছু গ্রাহকের জন্য তৈরি স্টক থেকে ভারতকে এই মিয়াইল সিস্টেম সরবরাহ করা হবে।

হ্যামার (হাইলি এগাইল মডিউলার মিউনিশন এক্সটেন্ডেড রেঞ্জ) হ’ল একটি মাঝারি রেঞ্জের এয়ার টু গ্রাউন্ড অস্ত্র। ফ্রান্স বিমান বাহিনী এবং নৌবাহিনীর জন্য প্রাথমিকভাবে এটি ডিজাইন ও তৈরি করেছিল। সূত্র জানাচ্ছে, এই মিসাইলের ফলে পূর্ব লাদাখের মতো পার্বত্য স্থানগুলোসহ যেকোনও জায়গায় বিরাট সুবিধা পাবে ভারতীয় বাহিনী।

উল্লেখ্য, ২৯ জুলাই ফ্রান্স থেকে ভারতে আসবে পাঁচটি রাফাল যুদ্ধ বিমান। এই যুদ্ধবিমানের সরবরাহ মে মাসের মধ্যেই হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু করোনার জেরে তা সম্ভব হয়নি।

সূত্র বলছে, রাফাল যুদ্ধবিমানের এয়ার টু এয়ার ও এয়ার টু গ্রাউন্ডে আঘাত করার ক্ষমতা চীন ও পাকিস্তানের এয়ারক্রাফটের থেকে আলাদা। এই বিমান ভারতকে দুই প্রধান প্রতিপক্ষ থেকে কিছুটা হলেও এগিয়ে রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here