ডাক ডেস্ক :: সিলেট নগরীর দক্ষিণ সুরমার ষ্টেশন রোডস্থ বাবনা পয়েন্টে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত সিলেট বিভাগীয় ট্যাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রিপন (৪৫) এর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (১১ জুলাই) বাদ আছর খোজারখলা মার্কাজ জামে মসজিদে মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। মরহুম ইকবাল হোসেন রিপন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৫নং ওয়ার্ডের খোজারখলা পশ্চিম মহল্লার প্রবীণ মুরব্বী আবুল হোসেনের ছেলে।
জানাজায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১, ২৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক বকস লিপন, ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু, পূর্বাঞ্চল কমিটির আহবায়ক ও বাংলাদেশ ট্যাঙ্কলরী শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব শাহজাহান ভূইয়া সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, সিলেট বিভাগীয় ট্যাঙ্কলরী শ্রমিক ইউনিয়ন-২১৭৪ এর সভাপতি মোঃ মনির হোসেন সহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এছাড়াও স্থানীয় মুরব্বী, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সমাজসেবীসহ সর্বস্তরের মুসল্লিগণ অংশ গ্রহণ করেন।
জানাজায় নামাজে ইমামতি করেন খোজারখলা মার্কাজ জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা হিফজুর রহমান।

জানাজা পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে নেতৃবৃন্দ কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান শ্রমিকনেতা ইকবাল হোসেন রিপন খুনের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি নিশ্চিত করতে হবে। পরে খোজারখলা পারিবারিক গোরস্থানে রিপনের লাশ দাফন হয়।
এদিকে শ্রমিকনেতা রিপনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন বাংলাদেশ ট্যাঙ্কলরী শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব শাহজাহান ভূইয়া ও সিলেট বিভাগীয় ট্যাঙ্কলরী শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ মনির হোসেন।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার রাত ১০ টায় ইকবাল হোসেন রিপন ও তার বন্ধু বাবলা আহমদ তালুকদার মোটর সাইকেল যোগে যাওয়ার পথে নগরীর দক্ষিণ সুরমার ষ্টেশন রোডস্থ বাবনা পয়েন্টে দুর্বৃত্তরা ধরালো অস্ত্র দিয়ে হামলা করলে রিপন ও তার বন্ধু বাবলা গুরুতর অহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইকবাল হোসেন রিপন-কে মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহত খোজারখলাস্থ মুক্তার আহমদ তালুকদারের পুত্র বাবলা আহমদ তালুকদার চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here