বিশেষ প্রতিবেদন :
মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজংয়ে পাশের দেশ ভারত থেকে আসা বেদে সম্প্রদায়ের লোকদের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হবার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

স্থানীয়রা বলছেন, বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন প্রায় প্রতি রাতেই ভারত থেকে দলে দলে ছুটে আসছে লৌহজংয়ের গোয়ালী মান্দ্রা, খড়িয়া ও কনকসার পল্লীতে। এদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা না থাকায় ভারত থেকে এসেই প্রকাশ্য দল বেধে ঘুরে ফিরছেন। যার মাধ্যমে করোনা সংক্রমিত হবার আশংকা দেখা দিয়েছে।

লৌহজংয়ের গোয়ালী মান্দ্রা, খড়িয়া ও কনকসারে বেদেদের পল্লী রয়েছে। বেদেরা কাজের প্রয়োজনে ভারতসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ায় বছর জুড়ে। বর্তমানে করোনার কারণে সব কিছু বন্ধ থাকায় এরা এখন দল বেঁধে বেদে পল্লীগুলোতে জড়ো হতে শুরু করেছে। করোনার কারণে সব কিছু বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ভারতে থাকা বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন এখন বেদে পল্লীমুখী হচ্ছে। ফিরতে শুরু করেছে লৌহজংয়ের বেদে পল্লীসহ জেলার অন্যান্য বেদে পল্লীতে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, ভারত থেকে প্রতিরাতেই দল বেঁধে ছুটে আসছে বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন। এসে কোয়ারেন্টাইন মানছেন না। বাজারসহ অবাধে চলাফেরা করছে বেদে পল্লীর লোকজনের সাথে। এদের কারো শরীরে করোনাভাইরাস থাকলে তা এলাকায় ছড়িয়ে যেতে পারে বলে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বাহির থেকে বেদে পল্লীতে আসাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার দাবি জানিয়েছেন তারা। নতুবা এর কারণে এলাকায় করোনা ছড়িয়ে যেতে পারে।

লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কাবিরুল ইসলাম খান বলেন, বেদেরা সহজে কথা শুনতে চায় না। তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা চলছে। তাদের ওয়ার্ড মেম্বারসহ বেদে পল্লীর সর্দারদের নিয়ে আমরা এ বিষয়ে সচেতনতা গড়ে তুলবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here