সংবাদ ডেস্ক ::

সুনামগঞ্জের ছাতকে বাবাকে হত্যার দায়ে আবদুর রশিদ (৪৫) নামে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তার ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও দুই মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার দুপুরে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন এ রায় দেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ২৩ মে সহিদ মিয়া তার ছোট ছেলে রিপন মিয়ার খতনা উপলক্ষে আত্মীয়-স্বজনকে দাওয়াত খাওয়ানোর জন্য ৯টি মোরগ কিনে আনেন। সেখান থেকে একটি মোরগ চুরি করে বিক্রি করে দেন বড় ছেলে আবদুর রশিদ। বাজার থেকে বাড়িতে আসার পর বাবা সহিদ মিয়া ছেলের কাছে মোরগ বিক্রির কারণ জানতে চান। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে রশিদ তার বাবা সহিদকে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওইদিন রাতেই তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় পরের দিন শহীদ মিয়ার স্ত্রী নুরুন নেছা বাদী হয়ে ছেলের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ আবদুর রশিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

দীর্ঘ শুনানি শেষে আজ রায় ঘোষণা করেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় আসামি রশিদ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here