সংবাদ ডেস্ক :: প্রখ্যাত সংকগীতশিল্পী বারী সিদ্দিকীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তখন দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এ সময় অচেতন ছিলেন তিনি।

চিকিৎসকরা বলছেন, বারী সিদ্দিকীর শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার দুটি কিডনি অকার্যকর। তিনি বহুমূত্র রোগেও ভুগছেন।

বারী সিদ্দিকীর ছেলে সাব্বির সিদ্দিকী গণমাধ্যমকে জানান, বাবা দুই বছর ধরে কিডনির সমস্যায় ভুগছেন। গত বছর থেকে সপ্তাহে তিন দিন কিডনির ডায়ালাইসিস করছেন তিনি। গতকাল সন্ধ্যায়ও শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে রাত ১০টার দিকে বাসায় ফেরেন। তখন স্বাভাবিক ছিলেন তিনি। কোনো অসুস্থতার কথা বলেননি। গভীর রাতে হঠাৎ তিনি গুরুতর হৃদরোগে আক্রান্ত হন। বাবার অবস্থা তখন ক্রমেই অবনতি হচ্ছিল। চিকিৎসকেরা কোনো আশার কথাই বলতে পারছেন না। আমার বাবার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

দীর্ঘদিন সংগীতের সঙ্গে জড়িত থাকলেও সবার কাছে বারী সিদ্দিকী শিল্পী হিসেবে পরিচিতি পান ১৯৯৯ সালে। ওই বছর হ‌ুমায়ূন আহমেদের ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ ছবিটি মুক্তি পায়। এই ছবিতে তিনি ছয়টি গান গেয়েছেন। তাঁর জনপ্রিয় হওয়া গানগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘শুয়াচান পাখি আমি ডাকিতাছি তুমি ঘুমাইছ নাকি’, ‘পুবালি বাতাসে’, ‘আমার গায়ে যত দুঃখ সয়’, ‘ওলো ভাবিজান নাউ বাওয়া’, ‘মানুষ ধরো মানুষ ভজো’। এরপর তিনি চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করেছেন। তাঁর গাওয়া গান নিয়ে বেরিয়েছে অডিও অ্যালবাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here